1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
লঞ্চ মালিকদের ভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাব অযৌক্তিক : নৌসচিব - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ০১:৪০ অপরাহ্ন

লঞ্চ মালিকদের ভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাব অযৌক্তিক : নৌসচিব

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : সোমবার, ৮ আগস্ট, ২০২২
  • ২০৯ 0 বার সংবাদি দেখেছে

ডেক্স রিপোর্ট // বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থার পক্ষ থেকে লঞ্চের ভাড়া বাড়ানোর বিষয়ে যে প্রস্তাব এসেছে, সে হার বেশি বলে মনে করেন নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোস্তফা কামাল।

সোমবার (৮ আগস্ট) নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে লঞ্চ মালিকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, জ্বালানি তেলের নতুন দাম পুনর্নির্ধারণ করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের প্রেসিডেন্ট ভাড়া পুনর্নির্ধারণের জন্য একটি চিঠি দিয়েছেন। এছাড়া লঞ্চ মালিক সমিতির পক্ষ থেকেও সভাপতি আমাদেরকে একটি চিঠি দিয়েছেন। আমরা সব স্টেকহোল্ডার যারা আছেন, তাদেরকে নিয়ে ইমিডিয়েটলি সভাটা ডেকেছি, ওনারা এখানে উপস্থিত আছেন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থার পক্ষ থেকে প্রস্তাব হচ্ছে প্রতি কিলোমিটার যেখানে আগে দুই টাকা ৩০ পয়সা ছিল সেটা বৃদ্ধি করে ৪ টাকা ৬০ পয়সা করা এবং যেটা দুই টাকা ছিল সেটা বৃদ্ধি করে ৪ টাকা করা। মূল্যবৃদ্ধি বা পুনর্নির্ধারণ প্রয়োজন আছে, কিন্তু এটা আমাদের কাছে একটু বেশি মনে হচ্ছে। এ কারণে আমরা একটি ওয়ার্কিং কমিটি করে দিয়েছি।

সচিব বলেন, সভা শেষে ওয়ার্কিং কমিটি বসবে। যেভাবে আগে মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল, একইভাবে পুনর্নির্ধারণ করা হবে। আমরা কয়েকটি বিষয় এখানে বিবেচনায় নিচ্ছি। শুধু সদরঘাট নয়, সারা বাংলাদেশকে চিন্তা করে সিদ্ধান্তটি নিতে হবে।

তিনি বলেন, আমাদের কাছে আজকের মধ্যেই তারা সুপারিশ দেবেন। সরকারের বিবেচনার জন্য আমরা উপস্থাপন করব। আমরা আমরা আশা করছি আগামীকাল অথবা ১০ আগস্টের মধ্যে এ বিষয়ে আমরা গেজেট প্রকাশ করতে পারব।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা (ওয়ার্কিং কমিটির প্রস্তাব) আজকে বিকেলের মধ্যেই নির্ধারিত হয়ে যাবে।

লঞ্চ মালিকদের যে দাবি ছিল সেটা যৌক্তিক মনে করছেন কি না- জানতে চাইলে সচিব বলেন, তারা প্রস্তাব দিয়েছে শতভাগ বৃদ্ধির এবং সেখানে তারা আরো কিছু বিষয় নিয়ে এসেছে অন্যান্য উপকরণ মবিল বা অন্যান্য সরঞ্জাম। আমার মনে হচ্ছে সেগুলো তো নতুন করে বাড়েনি। সেটা আমাদের জন্য মূল বিবেচ্য বিষয় নয়। তবে এটা পুনর্নির্ধারণ হবে, অবশ্যই রিজেনেবল হবে। কিন্তু ওনারা যেটা চেয়েছেন সেটা অবশ্যই বেশি, সেটা থেকে কমই হবে বলে আমি মনে করি।

গেজেট প্রকাশ পাওয়ার পর থেকে নতুন ভাড়া কার্যকর হবে বলেও জানান তিনি।

ডিজেলের দাম ২৩ শতাংশ বাড়ানোর পর গত বছরের নভেম্বরেই লঞ্চের ভাড়া ৩৫ শতাংশের বেশি বাড়ানো হয়েছিল। নভেম্বরের আগে লঞ্চে ১০০ কিলোমিটার মধ্যে দূরত্বে প্রতি কিলোমিটারে ভাড়া ছিল ১ টাকা ৭০ পয়সা। তখন তা থেকে বাড়িয়ে ২ টাকা ৩০ পয়সা করা হয়েছিল।

১০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বে প্রতি কিলোমিটারের ভাড়া নভেম্বরের আগে ছিল ১ টাকা ৪০ পয়সা। তা থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছিল ২ টাকা। আর লঞ্চের সর্বনিম্ন ভাড়া ১৮ টাকা থেকে বাড়িয়ে ২৫ টাকা করা হয়েছিল নভেম্বরে।

গত শুক্রবার রাত ১২টার পর জ্বালানি তেলের নতুন দাম কার্যকর করেছে সরকার। ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটারে ৩৪ টাকা বাড়িয়ে ১১৪ টাকা, পেট্রোলের দাম ৪৪ টাকা বাড়িয়ে ১৩০ টাকা এবং অকটেনের দাম ৪৬ টাকা বাড়িয়ে ১৩৫ টাকা করা হয়েছে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ