1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
অসাধু ব্যবসায়ীদের ব্যাপারে সরকারের কঠোর দৃষ্টি রয়েছে: আমু - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন

অসাধু ব্যবসায়ীদের ব্যাপারে সরকারের কঠোর দৃষ্টি রয়েছে: আমু

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট, ২০২২
  • ২৩০ 0 বার সংবাদি দেখেছে

ডেক্স রিপোর্ট // দেশের কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সুযোগ পেলেই সব জিনিসের দাম বাড়িয়ে অস্থিরতা সৃষ্টি করতে চায় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি। তিনি বলেন, এই ব্যবসায়ীরা পাকিস্তান আমল থেকে ব্যবসা করে আসছেন, তারা জিয়াউর রহমান কর্তৃক সৃষ্ট। এই দেশের ব্যবসা-বাণিজ্যের ভিত হচ্ছে তাদের হাতে। তাই অসাধু ব্যবসায়ীদের ব্যপারে সরকারের কঠোর দৃষ্টি রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে ঝালকাঠির নলছিটিতে শোক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। নলছিটি সরকারি মার্চেন্টস মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে এ সমাবেশের আয়োজন করে উপজেলা আওয়ামী লীগ।

সবাইকে ধৈয্যধারণ করার আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের এ প্রবীণ নেতা বলেন, আমাদের বিশ্বাস যেভাবে বিভিন্ন সময় প্রধানমন্ত্রী দুরদর্শীতার মাধ্যমে দেশের মানুষকে উদ্ধার করেছেন, এবারও ঠিক এক দেড় মাসের মধ্যে এই দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবেন।

আমির হোসেন আমু বলেন, বিএনপি প্রথমে খালেদা জিয়ার চিকিৎসার নামে আন্দোলন শুরু করলেন, মানুষ সাড়াদিল না, পরবর্তীতে তত্ত্বাবধায়ক সরকার-জাতীয় সরকারের দাবি করলেন মানুষ বিভ্রান্ত হলো, তাদের একেকবার একেক কথা শুনে। বিএনপির আন্দোলনও ব্যর্থ হয়ে গেলে।  এখন হঠাৎ যখন রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে বিশ্বে অর্থনৈতিক মন্দা, সারাদেশের অর্থনীতি হুমকির মুখে পড়েছে, তখন তারা জাতিকে নতুন করে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।

বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরে জিয়াউর রহমান খুনিদের পুরস্কৃত করেছিলেন দাবি করে আমু বলেন, ৭৫ পরবর্তী সময়ে এই দেশে সাম্প্রদায়িক রাজনীতির অনুপ্রবেশ ঘটানো হয়েছিল, বাংলাভাই সৃষ্টি করা হয়েছিল। আজকে বিএনপি বড় বড় কথা বলছে, পাকবাহিনী যেভাবে হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল, ২০০১ সালে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপরও সেভাবে অত্যাচার হয়েছিল। আজকে তাদের মুখে শোনাযাচ্ছে গণতন্ত্রেণ নামাবলি। জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধের সাইনবোর্ড লাগিয়ে তিনি সাড়ে ১১ হাজার যুদ্ধাপরাধী মানবতা বিরোধীদের মুক্ত করেছেন, তাদের পুরস্কৃত করেছেন জিয়া। তাকে অনুস্মরণ করে খালেদা জিয়াও যুদ্ধাপরাধীদের এই দেশে মন্ত্রী বানিয়েছিল।

নলছিটি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভঅপতি তছলিম উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শোক সভায় বক্তব্য রাখেন ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির, আমির হোসেন আমুর কন্যা ব্যারিস্টার সুমাইয়া হোসেন অদিতি, নলছিটি পৌর মেয়র আব্দুল ওয়াহেদ খান ও আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট জি কে মোস্তাফিজুর রহমান।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ