1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
বরিশাল/ ডিমের দোকানসহ ৫ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে জরিমানা - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৫৫ অপরাহ্ন

বরিশাল/ ডিমের দোকানসহ ৫ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : শনিবার, ২০ আগস্ট, ২০২২
  • ১৫৬ 0 বার সংবাদি দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক // জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বিশেষ অভিযানে ডিমের দোকান, ফার্মেসি ও খাবার হোটেলসহ ৫ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি খামারি পর্যায় থেকে অযৌক্তিকভাবে ডিমের মূল্য না বাড়ানোর জন্য খামারিদের ধন্যবাদ দেওয়ার পাশাপাশি ভবিষ্যতে বাজার দর স্বাভাবিক রাখতে তাদের সতর্ক করা হয়েছে।

শনিবার (২০ আগস্ট) সকাল থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক অপূর্ব অধিকারীর নেতৃত্বে অভিযানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সুমি রানী মিত্র, জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শাহ শোয়াইব মিয়া ও পিরোজপুর জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক দেবাশীষ রায়।

অভিযানে বরিশাল শহরের বিমানবন্দর থানাধীন গড়িয়ারপাড় এলাকায় অপরিষ্কার-অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে খাবার উৎপাদন ও বিক্রি করায় আরিফ হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টকে আট হাজার টাকা, প্রাণিসম্পদের মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ রাখায় সাইবা ফার্মেসিকে দুই হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অপরদিকে পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ উপজেলায় সদর বাজারে অভিযান চালিয়ে মূল্য তালিকা না থাকায় সিকদার অ্যান্ড সন্স নামে এক ডিমের দোকানকে ৫ হাজার টাকা, মেয়াদ শেষ হওয়ায় তেলের বোতলের ওপরের অংশে থাকা মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ ও মূল্য তালিকা মুছে ফেলে বিক্রি করার অপরাধে হাজি ট্রেডার্সকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া কামার কাঠি বাজারে অভিযান চালিয়ে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও চিকিৎসকের ওষুধের স্যাম্পল বিক্রি করার অপরাধে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

এ বিষয়ে বরিশাল জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. শাহ শোয়াইব মিয়া জানান, মূলত আজকের অভিযানটি বিশেষ অভিযান। এ অভিযানে আমরা খামারি পর্যায়ে ডিমের দাম তদারকি করেছি। আর নেছারবাদ থেকে বরিশাল শহরসহ আশপাশের এলাকায় ডিম সরবরাহ হওয়ায় আমরা সেখানকার ১০টির মতো ডিম উৎপাদনের খামার পরিদর্শন করেছি।

তিনি বলেন, খামারি থেকে ৮ টাকা ৮০ পয়সায় পাইকারদের কাছে প্রতি পিস ডিম সরবরাহ করা হচ্ছে। এমনকি বরিশাল শহরের শুক্কুর ট্রেডার্সসহ বিভিন্ন পাইকারি প্রতিষ্ঠান পর্যন্ত এ দামে ডিম পৌঁছানো হচ্ছে। সেই হিসাবে খামারিরা সঠিক থাকায় তাদের ধন্যবাদ জানানো হয়েছে। পাশাপাশি বাজার ব্যবস্থা নিয়ে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হয়েছে।

এদিকে অভিযানের ভয়ে বরিশালের কোথাও ৪০ থেকে ৪১ টাকায় প্রতি হালি ডিম বিক্রি করা হলেও, অভিযানিক দল চলে যাওয়ার পর ৪৬ টাকা হালিতেও ডিম বিক্রি করতে দেখা গেছে।

এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বরিশাল বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক অপূর্ব অধিকারী।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ