1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
বরিশালে ফেরি ছাড়তে বিলম্ব: অ্যাম্বুলেন্সেই প্রাণ গেল শিশুর - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ০৫:৫৮ অপরাহ্ন

বরিশালে ফেরি ছাড়তে বিলম্ব: অ্যাম্বুলেন্সেই প্রাণ গেল শিশুর

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৩ আগস্ট, ২০২২
  • ৬৫ 0 বার সংবাদি দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক // বরিশালে ঘাট থেকে ফেরি ছাড়তে দেরি করায় অ্যাম্বুলেন্সেই গরমে এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার রাতে বাবুগঞ্জ-মীরগঞ্জ ফেরিঘাটে এই ঘটনা ঘটেছে।

শিশুটির বাবা বরিশাল জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাব্বির হোসেন লিমনের অভিযোগ, ফেরিঘাট কর্তৃপক্ষের অবহেলায় বিনা চিকিৎসায় তার সন্তানের মৃত্যু হয়েছে।

বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম খোকনের স্ত্রী এই ফেরিঘাটের ইজারাদার। খোকন বরিশাল জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক পদেও আছেন।

লিমন সাংবাদিকদের বলেন, ১৪ আগস্ট বরিশালের একটি বেসরকারি হাসপাতালে আমাদের ছেলেসন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। হাসপাতাল থেকে ২১ আগস্ট ছাড়পত্র দিলে সন্তানকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে গ্রামের বাড়ি মুলাদীর উদ্দেশে রওনা হই। ওই অ্যাম্বুলেন্সে আত্মীয়স্বজন সবাই ছিলেন। আগে থেকেই জানতাম, মীরগঞ্জ ফেরিঘাটে সন্ধ্যার ফেরি ছেড়ে যায় ৬টা ৪০ মিনিটে।

‘আমরা নির্ধারিত সময়ের এক থেকে দুই মিনিট আগে ঘাটে পৌঁছে দেখি ফেরি আসেনি। কিছুক্ষণ পর ফেরি এলে অ্যাম্বুলেন্সসহ ফেরিতে উঠি। নির্ধারিত সময়ের পরও ফেরিটি ছাড়ছিল না। বারবার অনুরোধ করায় ফেরিঘাটের ইজারাদারের লোক সাইফুল ইসলাম আমাদের শাসিয়ে যাচ্ছিলেন। ফেরিটি ৮টা ২০ মিনিটে ঘাট ত্যাগ করে।’

তিনি বলেন, ‘দীর্ঘ সময় ফেরিতে গাড়ি আটকে থাকায় অস্বাভাবিক গরমে চোখের সামনে আমার সন্তান মারা গেছে। আমি কিছুই করতে পারিনি। সাইফুলের কাছে ফেরি দুই ঘণ্টার বেশি সময় আটকে রাখার কারণ জানতে চাইলে তিনি দলবল নিয়ে আমাকে মারতে আসেন। উপস্থিত লোকজন তখন আমাকে অ্যাম্বুলেন্সে উঠিয়ে দেন।’

লিমন বলেন, ‘ফেরিঘাটটি ইজারা নিয়েছেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম খোকনের স্ত্রী। শিমু এন্টারপ্রাইজ নামের প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্সের অনুকূলে তিনি ঘাটটি ইজারা নেন। তার তত্ত্বাবধানে থাকা ফেরিঘাটে অবহেলায় শিশুর মৃত্যু হবে, এটা মেনে নেয়া যায় না। আমি আইনের আশ্রয় নেব। আমার সন্তানের মৃত্যুর জন্য দায়ীদের বিচার চাই।’

এ বিষয়ে সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র ও আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম খোকন সাংবাদিকদের বলেন, ‘যার বাচ্চা মারা যায়, তিনি অনেকের বিরুদ্ধেই বলতে পারেন। তারপরও ঘাটে কারও গাফিলতি থাকলে আমি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’

বাবুগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘ওই ঘটনায় বিষয়ে খোঁজখবর নেব। কেউ লিখিত অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ