1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
হাওয়াইতে ভয়াবহ দাবানল: নিহত বেড়ে ৯৩ - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১:২৯ অপরাহ্ন

হাওয়াইতে ভয়াবহ দাবানল: নিহত বেড়ে ৯৩

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : সোমবার, ১৪ আগস্ট, ২০২৩
  • ৪৪ 0 বার সংবাদি দেখেছে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক // ভয়াবহ দাবানলে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই রাজ্যের মাউই কাউন্টি। এতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৩ জনে। এখনো উদ্ধার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন উদ্ধারকারীরা। স্থানীয় সময় রোববার (১৩ আগস্ট) মাউই কাউন্টি বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ক্যাডেভার কুকুরের মাধ্যমে অনুসন্ধানকারীরা এখনো মৃতদেহ খুঁজছেন। দাবানলের কারণে অন্তত এক হাজার ভবন পুড়ে গেছে। ঘরছাড়া হয়েছে হাজার হাজার বাসিন্দা।

এ ঘটনায় স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। নিহতের সংখ্যা বিবেচনায় এটি যুক্তরাষ্ট্রের শত বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়ংকর দাবানল।

স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। নিখোঁজদের সন্ধানে এখনও তল্লাশি চলছে। সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে লাহাইনা শহর। ওই রিসোর্ট নগরীর ১২ হাজার বাসিন্দাকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

গভর্নর জোস গ্রিন বলেছেন, দিনটি একটি ‘হৃদয়বিদারক দিন’। এ ঘটনায় ঐতিহাসিক নগরী লাহাইনার অন্তত ১ হাজার ৭০০ ঘরবাড়ি ধ্বংস এবং হাজার হাজার লোক বাস্তুচ্যুত হয়েছে। শহরটির ৮০ শতাংশ এলাকা দাবানলের আগুনে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। বাস্তুচ্যুত হয়ে পড়া হাজার হাজার মানুষের জন্য ঘরবাড়ি তৈরি করতে হবে। প্রাথমিকভাবে হোটেলগুলোতে দুই হাজার কক্ষ চাওয়া হয়েছে তাদের জন্য।

তিনি বলেন, যেসব এলাকায় লোকজন এখনও বসবাস করতে পারছে সেখানকার মানুষদের তাদের বাড়ির অতিরিক্ত কক্ষে আশ্রয়হীনদের আশ্রয় দেয়ার জন্য অনুরোধ করছি। এটা হাওয়াই দ্বীপের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় প্রাকৃতিক দুর্যোগ। নিহতের সংখ্যা এখনও বাড়ছে। শত শত ঘর ধ্বংস হয়ে গেছে।

তিনি বলেন আরও বলেন, লাহাইনাকে আবার নতুন করে গড়ে তুলতে বহু বছর লাগবে। এই শহরটিই মূলত দাবানলের কেন্দ্রবিন্দু। লাহাইনার ধ্বংসযজ্ঞের চিত্র দেখলে আপনি বিস্মিত হবেন। সবভবনই নতুন করে তৈরি করতে হবে। এটা হবে একটা নতুন লাহাইনা।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার (৮ আগস্ট) মধ্যরাতের পরপরই শুরু হয় এই দাবানল। প্রথমে লাহাইনা থেকে প্রায় ৫৬ কিলোমিটার দূরে কুলা শহরে একটি ব্রাশ ফায়ারের খবর পাওয়া যায়। বাসিন্দাদের মতে এর প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর সেই সকালে লাহাইনায় বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়। তখন থেকেই মাউই কাউন্টির শত শত চারণভূমি আগুনে পুড়ে গেছে। তবে বিকেল নাগাদ পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে ওঠে।

কাউন্টির হালনাগাদ অনুযায়ী, বেলা সাড়ে ৩টার দিকে লাহাইনার আগুন হঠাৎ জ্বলে ওঠে। শহরের পশ্চিম দিকে হোটেলের অতিথিসহ লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয় নেয়ার নির্দেশ দেয়া হলে কিছু বাসিন্দা সরে যেতে শুরু করে।

সূত্র : আল জাজিরা

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ