1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
পাঁচ আসনে ৩৮ জনের মনোনয়ন বৈধ, বাতিল ৭ - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৪১ অপরাহ্ন

পাঁচ আসনে ৩৮ জনের মনোনয়ন বৈধ, বাতিল ৭

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : সোমবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ২১ 0 বার সংবাদি দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক // আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জের পাঁচটি আসনে বিভিন্ন দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মোট ৪৫ জন মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন। এদের মধ্যে ৩৮ জনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা। আজ সোমবার সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে শুরু হয় প্রার্থীদের মনোনয়ন বাছাইয়ের কার্যক্রম। এ সময় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহমুদুল হক বৈধ ও বাতিল হওয়া প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করেন।

নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনে মোট ১০ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ আসনে ৯ জনের বৈধ ও একজনের বাতিল করা হয়েছে। বৈধ হয়েছে- গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতিক)- (আওয়ামী লীগ), তৈমুর আলম খন্দকার (তৃণমূল বিএনপি), শাহাজাহান ভুইয়া (স্বতন্ত্র), গাজী গোলাম মর্তুজা (স্বতন্ত্র), মো. হাবিবুর রহমান (স্বতন্ত্র), মো. জোবায়ের আলম (স্বতন্ত্র), মো. সাইফুল ইসলাম (স্বতন্ত্র), মো. জয়নাল আবেদীন চৌধুরী (স্বতন্ত্র), একেএম শহিদুল ইসলাম (ইসলামী ফ্রন্ট বাংলাদেশ)। জামানত জমা না দেওয়ার কারণে বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টির আফাজউদ্দিন মোল্লার মনোনয়নটি বাতিল করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনে ছয়জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে চারজনের মনোনয়ন বৈধ ও দুজনেরটা বাতিল করা হয়েছে। বৈধ হয়েছে- নজরুল ইসলাম বাবু (আওয়ামী লীগ), মো. আবু হানিফ হৃদয় (তৃণমূল বিএনপি), শাহজাহান (জাকের পার্টি), আলমগীর সিকদার লোটন (জাতীয় পার্টি)। সঠিকভাবে ফর্ম পূরণ না করায় বাতিল হয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মামুন দিদার এবং ঋণখেলাপির কারণে মো. শরিফুল ইসলামের মনোনয়নও বাতিল করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনে জেলার সর্বাধিক ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তাদের মধ্যে ১১ জনের বৈধ ও দুজনেরটা বাতিল করা হয়েছে। বৈধ হয়েছে- কায়সার হাসনাত (আওয়ামী লীগ), লিয়াকত হোসেন খোকা (জাতীয় পার্টি), মো. মজিবুর রহমান মানিক (বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন), মোহাম্মদ আসলাম হোসেন (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), এবিএম ওয়ালিউর রহমান খান (বিএনএম), নারায়ণ দাস (বিকল্প ধারার বাংলাদেশ),এরফান হোসেন (স্বতন্ত্র), মারুফ ইসলাম ঝলক (স্বতন্ত্র), মো. আরিফ (মুক্তিজোট), রুবিয়া সুলতানা (স্বতন্ত্র), এ.এইচ.এম মাসুদ (স্বতন্ত্র)। অপরদিকে ঋণখেলাপির জন্য বাতিল হয়েছে সিরাজুল হক (বাংলাদেশ কংগ্রেস) এবং মো. জামিল মিজি (জাকের পার্টি) মনোনয়নপত্র।

নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনে ১১ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ৯ জনের বৈধ ও দুজনেরটা বাতিল করা হয়েছে। বৈধ হয়েছে- শামীম ওসমান (আওয়ামী লীগ), মো. সৈয়দ হোসেন (সমাজতান্ত্রিক দল জাসদ), মো. আলী হোসেন (তৃণমূল বিএনপি), মো. মূরাদ হোসেন জামাল (জাকের পার্টি), মো. ছালাউদ্দিন খোকা (জাতীয় পার্টি), মো সেলিম আহমেদ (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি), মো. হাবিবুর রহমান (ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ), মো. শহীদ উন নবী (ন্যাশনাল পিপলস পার্টি), গোলাম মোর্শেদ রনি (বাংলাদেশ কংগ্রেস)।

বাতিল হয়েছে- এক শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর যথাযথ ভাবে প্রদান না করায় এবং ফর্ম সঠিভাবে পূরণ না করায় স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. রাশেদুল ইসলাম ও কাজী দেলোয়ার হোসেনের (স্বতন্ত্র) মনোনয়ন পত্রটি বাতিল হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ-৫ (সদর-বন্দর) আসনে পাঁচজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এ আসনের সব প্রার্থীকে বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রার্থীরা হলেন- একেএম সেলিম ওসমান (জাতীয় পার্টি), এএমএম একরামুল হক (ইসলামি ফ্রন্ট বাংলাদেশ), মোর্শেদ হাসান (জাকের পার্টি), মো. আব্দুল হামিদ ভাষানী ভূইয়া (তৃণমূল বিএনপি), ছামসুল ইসলাম (বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টি)।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ