1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
‘মঈন খানের এক কথা, ফখরুল বলেন আরেক কথা’ - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

‘মঈন খানের এক কথা, ফখরুল বলেন আরেক কথা’

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০২৪
  • ২৫ 0 বার সংবাদি দেখেছে
নিজস্ব প্রতিবেদক // ভারতীয় পণ্য বয়কটের ডাকে বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতাদের বক্তব্যে মিল নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ শনিবার সকালে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি অবাক করা দল। বিএনপির এক নেতা বলেন- বাংলাদেশের স্বাধীনতায় ভারত আমাদের সহযোগিতা করেছে। আবার আরেক নেতা ভারতীয় পণ্য বর্জনের ডাক দেন। মঈন খানের এক কথা, রিজভীর আরেক কথা। সিঙ্গাপুর থেকে মির্জা ফখরুল বলেন আরেক কথা। নেতায় নেতায় কথায় মিল নেই।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি ক্ষমতাকেন্দ্রীক ও নিজেদের পকেটের উন্নয়নের দল। সাধারণ মানুষের দল নয়। আর আওয়ামী লীগ জনগণের দল। বিএনপি ইফতার পার্টি করে, আর আওয়ামী লীগ সাধারণ মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করে। এই হলো আওয়ামী লীগ আর বিএনপির মধ্যে পার্থক্য।

আওয়ামী লীগের নেতা বলেন, ইফতার পার্টি না করে ইফতার ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করতে দলীয় সভাপতি বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যে নির্দেশ তা পুরো ঢাকা শহরসহ সারাদেশে অব্যাহত রাখতে হবে।

বর্তমান বাজারদর নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘ইদানীং বেশ কিছু পণ্যের দাম কমতে শুরু করেছে। পেঁয়াজের দাম কোথায় গিয়েছিল, এখন সেটা ৩০/৩৫ /৪০ টাকায় নেমে গেছে। আমার মনে হয়, জিনিসপত্রের দাম আরও কমবে। সাধারণ মানুষের সহনীয় পর্যায়ে আসবে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, পাকিস্তান আমল থেকেই বিরোধীরা কোনো ইস্যু না পেলে একটাই ইস্যু সামনে আনে। আর সেটা হলো- আওয়ামী লীগ বিরোধিতা। আগে বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে হতো, আর এখন শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে হচ্ছে। সেটা হচ্ছে ভারত বিরোধী। এখানে ভারতের কি আছে? বাংলাদেশের জনগণ শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন। নির্বাচনে ৪১ ভাগের বেশি ভোট পড়েছে , অনেক উন্নত দেশেও এই পরিমাণ ভোট পড়ে না। তারপরও তারা বলে ভারত এখানে নির্বাচিত করল।

বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অনেক ষড়যন্ত্র ছিল উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারতসহ বন্ধু দেশগুলো দেশি-বিদেশে নির্বাচন বানচালের চক্রান্ত প্রতিহত করে পাশে এসে দাঁড়িয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য কামরুল ইসলাম, প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান, জাতীয় কমটির সদস্য আব্দুল বাতেন, সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান, মিজানুর রহমান,নাসিরউদ্দিন দিলু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী ইকবাল, সাংগঠনিক সম্পাদক হালিমা আক্তার লাবণ্য, শাখাওয়াত হোসেন, হাবিবুর রহমান হাবিব, দপ্তর সম্পাদক আরমান হোসেন, উপ-দপ্তর নাদিম। এছাড়া দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। সভায় সভাপতিত্ব করেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা বেনজির আহমেদ ও সঞ্চালনায় ছিলেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ