1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
ছেলেকে ভোট না দিলে উন্নয়ন বন্ধের হুমকি এমপি পত্নীর - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৫:৫১ অপরাহ্ন

ছেলেকে ভোট না দিলে উন্নয়ন বন্ধের হুমকি এমপি পত্নীর

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৭ মে, ২০২৪
  • ২৯ 0 বার সংবাদি দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক // উপজেলা নির্বাচনে নিজের ছেলেকে ভোট না দিলে এলাকার উন্নয়ন ঠেকিয়ে দেওয়ার হুমকি দিলেন নোয়াখালী-৪ আসনের সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীর স্ত্রী কামরুন নাহার শিউলি। তিনি সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী আতাহার ইশরাক শাবাব চৌধুরীর মা এবং জেলার কবিরহাট উপজেলার চেয়ারম্যান।

গত রোববার বিকেলে উপজেলার ৮ নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের সাত্তার মাঝির বাড়িতে নিজের ছেলের আনারস প্রতীকের উঠান বৈঠকে এ হুমকি দেন। তিনি বলেন, এ এলাকার যে চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন তাকে জিজ্ঞেস করেন, তুই আগে কি একরাম চৌধুরীর বাড়িতে গিয়ে ভয়ে ভয়ে বলতি ভাবি আমাকে বাঁচান। এখন সেই চেয়ারম্যান জোট করেছে। জোট করে যদি উন্নয়ন করতে পারলে, কর। তার ডিও লেটারে তো আর উন্নয়ন আসবে না। সে জনগণের চাল মেরে দিতে পারে। এদের আপনারা চিনে রাখুন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন চৌধুরী নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ এএইচএম খায়রুল আনম চৌধুরী সেলিমের দোয়াত-কলম মার্কার ভোট করছেন। বিভিন্ন স্থানে সভা-সমাবেশেও উপস্থিত থাকছেন তিনি।

এর আগেও নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে মহিউদ্দিন চৌধুরীকে হুমকি দিতে শোনা যায় সংসদ সদস্য একরামুল করিম চৌধুরীকেও। ছেলে সাবাব চৌধুরীকে ভোট না দিলে উন্নয়ন না করার হুমকি দেন তিনি। এক বক্তব্যে তিনি বলেন, যে এলাকা থেকে ভোট কম দেবেন, সে এলাকায় কোনো উন্নয়নে হাত দেবেন না তিনি।

আমাকে দেবেন, আমি আপনাদের দেব। আমারে এমপি বানাইছেন, আমি তো বলছি, পাঁচ বছর ক্ষমতায় আছি, এখন আমার মনমতো উপজেলা চেয়ারম্যান যদি বানান, আমার মিডলম্যান (নিজের ছেলে), আমি আপনাদের উপহার দিয়ে গেলাম। এমপি একরামুল করিম চৌধুরী এমন বক্তব্য দিয়ে বিতর্কের জন্ম দেয়।

মোহাম্মদপুরের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন চৌধুরী এই বক্তব্যের বিষয়ে বলেন, আমি কখনো অন্যায়-অপরাধ করিনি। কারও কাছে মাথা নামিয়ে কথাও বলিনি। মাফও চাইনি। মোহাম্মদপুরের জনগণ বোকা না। তারা সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে জানে। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য সংসদ সদস্যের স্ত্রী কামরুন নাহার শিউলির মোবাইলে ফোন করা হলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Comments are closed.

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ