1. faysal.rakib2020@gmail.com : admin :
  2. ukbanglatv21@gmail.com : Kawsar Ahmed : Kawsar Ahmed
চিংড়িতে বিষাক্ত জেলি (!) এটা কি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর? - বাংলার কন্ঠস্বর ।। Banglar Konthosor
শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ০৭:৪৩ অপরাহ্ন

চিংড়িতে বিষাক্ত জেলি (!) এটা কি স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর?

  • প্রকাশিত :প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৯ আগস্ট, ২০২২
  • ২৯০ 0 বার সংবাদি দেখেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক // রাজধানী ঢাকায় সম্প্রতি বেশ কয়েকটি মাছের আড়তে অভিযান চালায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ভ্রাম্যমাণ আদালত। এসব অভিযানের মাধ্যমে বেরিয়ে এসেছে যে অভ্যন্তরীণ বাজারে মাথায় জেলি-যুক্ত চিংড়ি বিক্রি করা হচ্ছে। জেলি-যুক্ত চিংড়ি বিক্রির দায়ে যাত্রাবাড়ী এলাকায় মাছের আড়তের বেশ কয়েক জন ব্যবসায়ীকে জরিমানাও করা হয়েছে।

অভিযান পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাদির শাহ নাদিম সাংবাদিকদের বলেন, তারা যাত্রাবাড়ীর বেশ কয়েকটি আড়তে গেছেন। এসব আড়তের যেসব দোকানি চিংড়ি মাছ বিক্রি করছিল, তাদের প্রায় সবার কাছ থেকেই জেলি দেওয়া মাছ উদ্ধার করেছেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাদির শাহ নাদিম বলেন, জেলা মৎস্য অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের অভিযোগের ভিত্তিতেই এই অভিযান চালানো হয়। মঙ্গলবারের ওই অভিযানে ছিলেন ঢাকা জেলার মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ। তিনি বলেন- জেলি থাকার কারণে দুই হাজার কেজির মতো চিংড়ি নষ্ট করে ফেলা হয়েছে।

মি. রশিদ জানান, সাধারণত খুলনা, সাতক্ষীরা, বাগেরহাট- যেখানে চিংড়ি উৎপাদিত হয়, সেখানে চিংড়ি ধরে বাজারে আনার আগেই সেগুলোতে এই জেলি পুশ করা হয়। তাই বাজারে জেলি-যুক্ত চিংড়ি বিক্রি বন্ধ করতে হলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকেই পদক্ষেপ নিতে হবে।

মূলত ওজন বাড়ানোর জন্যই বিক্রেতারা এমনটা করে বলে জানান মি. রশিদ।

“চিংড়িকে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি কারণ এর আগে রপ্তানির জন্য পাঠানো চিংড়িতে সাগু থাকার কারণে সেটি বাতিল হয়ে গিয়েছিল। সেরকম কিছু যাতে আর না ঘটে,” বলছিলেন মৎস্য কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ।

কীভাবে চিনবেন জেলি-যুক্ত চিংড়ি?

বাজারে চিংড়ি কিনতে গেলে কোনটিতে জেলি আছে আর কোনটিতে জেলি নেই দেখে বোঝার তেমন কোন উপায় নেই বলে জানান মৎস্য কর্মকর্তারা। তবে এক্ষেত্রে ক্রেতাকে সতর্ক থাকতে হবে বলে জানান তারা।

মৎস্য কর্মকর্তা মি. রশিদ বলেন, খালি চোখে দূর থেকে দেখলে বোঝা যাবে না যে চিংড়িতে জেলি আছে কিনা। এর জন্য কাছে গিয়ে দেখতে হবে। তবে নিশ্চিত হতে হলে চিংড়ি মাছের মাথা ভেঙ্গে তারপর দেখতে হবে যে সেখানে কোন তরল পদার্থ আছে কিনা।

এ বিষয়ে মি. রশিদ বলেন, যদি চিংড়ি মাছ প্রাকৃতিক হয়ে থাকে তাহলে মাথা ভাঙার পরও সেখানে থাকা দ্রব্যগুলো সহজেই ছড়িয়ে পড়বে না।

“আর যদি জেলি দেওয়া থাকে তাহলে মাথা ভাঙার সাথে সাথে সেখানে আলগা একটি বস্তু দেখা যাবে, নিচু করে ধরলে সেটা সবটা বেরিয়ে আসতে চাইবে।”

মি. রশিদ বলেন, তখন দেখেই বোঝা যাবে যে আলাদা কোন বস্তু সেখানে প্রবেশ করানো হয়েছে।

তবে অনেক সময় দোকানদার কিংবা মাছ-বিক্রেতারা মাথা ভেঙে দেখতে দিতে চান না। তাই জেলি-যুক্ত চিংড়ির বাজারজাতকরণ ঠেকাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকেই পদক্ষেপ নিতে হবে বলে মনে করেন তিনি।

জেলি-যুক্ত চিংড়ি কি ক্ষতিকর?

আন্তর্জাতিক বাজার ছাড়াও অভ্যন্তরীণ বাজারেরও দেশি মাছ এবং চিংড়ির ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তারা বলছেন, রাজধানী ঢাকাতেই প্রায় দুই কোটি মানুষ স্থানীয় বাজার থেকে মাছের চাহিদা পূরণ করে থাকেন। যার মধ্যে অন্যতম চিংড়ি। জনপ্রিয় এই মাছে জেলির উপস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ জানিয়েছেন দেশের সাধারণ ভোক্তারাও।

সামান্তা খালিদ নামে এক ক্রেতা বলেন, চিংড়ি কিনে বাসায় আনার পর কাটলে বোঝা যায় যে ভেতরে কিছু একটা রয়েছে। কিন্তু অনেক সময় না জেনেই সেটা খেয়ে ফেলে অনেকে। এটা ক্ষতিকর সেটা তিনি জানতেন বলেও জানান।

খাদ্য ও পুষ্টিবিদরা বলছেন- চিংড়ি মাছের ভেতরে যে জেলি পাওয়া যায় তা পুরোটাই প্লাস্টিক।

এছাড়া সাগু বা অনেক সময় সাদা পাথর এবং ধাতব পদার্থও পাওয়া যায়। আর এগুলো খেলে কিডনি ও পাকস্থলীর জটিলতা তৈরি হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন পুষ্টিবিদ ইমদাদ হোসেন শপথ।

তিনি বলেন, পাথর এমনিতেই হজম হয় না। সেটা পাকস্থলীতে গিয়ে জমে থাকে। যার কারণে এক ধরনের অস্বস্তি এবং পাকস্থলীর প্রদাহ তৈরি করে।

“জেলির যে কেমিক্যাল সাবস্ট্যান্স সেটা একেবারেই ডাইজেস্ট হবে না। এটা পাকিস্থলীতে থেকে ক্ষতিসাধন করতে পারে এবং এটা কিডনির জন্য ক্ষতিকর।”

তিনি বলেন, খাবারের সাথে যেকোনো অপ্রত্যাশিত বস্তু যা খাবার নয় সেটা থাকাটাই ক্ষতিকর।

চিংড়ি ছাড়াও সাদা পোয়া মাছ লাল করতে লাল রং এবং শিং মাছের রং প্রাকৃতিক বানাতেও এগুলোর সাথে রং মিশ্রিত করা হয় বলে জানান জেলা মৎস্য কর্মকর্তারা।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

‍এই ক্যাটাগরির ‍আরো সংবাদ